নাগরিক সংবাদ

রজতজয়ন্তীতে প্রাণোচ্ছল হাবিপ্রবি ডিবেটিং সোসাইটি

প্রকাশ: ১২ জানুয়ারী ২০২১, ৯:৩৪ পূর্বাহ্ণ
 অ্যাকশনএইড প্রথম আলো বন্ধুসভা বিতর্ক উৎসবে বিভাগীয় চ্যাম্পিয়ন হয় হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিতার্কিকেরা
অ্যাকশনএইড প্রথম আলো বন্ধুসভা বিতর্ক উৎসবে বিভাগীয় চ্যাম্পিয়ন হয় হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিতার্কিকেরা
ছবি: সংগৃহীত

১১ জানুয়ারি ছিল উত্তরাঞ্চলের অন্যতম বিদ্যাপীঠ হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটির ২৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। ১৯৯৬ সালে তৎকালীন হাজী মোহাম্মদ দানেশ কৃষি কলেজের শিক্ষক সাইদুর রহমান, দিদারুল আলম এবং হাবিপ্রবির কৃষি অনুষদের অধ্যাপক ড. মো. শাহাদত হোসেন খান লিখনসহ আরও অনেকের পরিশ্রমের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠা পায় ডিবেটিং সোসাইটি অব হাজী মোহাম্মদ দানেশ কৃষি কলেজ। পরে কৃষি কলেজ হতে বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তরিত হওয়ার পর সংগঠনটির নাম হয় ডিবেটিং সোসাইটি অব এইচএসটিইউ।
২০১৭ সালে সংগঠনটির তৎকালীন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে প্রথমবার আনুষ্ঠানিকভাবে সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করা হয়। সেই ধারাবাহিকতায় পরের বছরগুলোতেও সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী বিপুল উৎসাহ ও উদ্দীপনার মাধ্যমে পালিত হচ্ছে। বিভিন্ন ধরনের প্রীতি বিতর্ক, প্রতিযোগিতা, শোভাযাত্রা, কেক কাটা, ক্যাম্প ফায়ার, ফানুস ওড়ানোসহ নানা কর্মসূচিতে পালন করা হয় দিনটি। গেল বছর এ দিনে সংগঠনটির অফিশিয়াল ওয়েবসাইট ও ইউটিউব চ্যানেলের যাত্রা শুরু হয়। কিন্তু এ বছর করোনা পরিস্থিতির কারণে দিনটি উদ্‌যাপন করা সম্ভব হয়নি।

 করোনা মহামারির জন্য ২৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আড়ম্বরপূর্ণভাবে উদ্‌যাপিত না হলেও রজতজয়ন্তীতে সংগঠনটির সদস্যরা বিতর্কের ধারা বজায় রাখার দৃঢ় প্রত্যয়ে উদ্দীপ্ত
করোনা মহামারির জন্য ২৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আড়ম্বরপূর্ণভাবে উদ্‌যাপিত না হলেও রজতজয়ন্তীতে সংগঠনটির সদস্যরা বিতর্কের ধারা বজায় রাখার দৃঢ় প্রত্যয়ে উদ্দীপ্ত
ছবি: সংগৃহীত

২৫ বছরের সোনালি অতীতে সংগঠনটির অর্জনও অনেক। দেশব্যাপী আয়োজিত বিভিন্ন বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে সংগঠনটি ধারাবাহিক সাফল্য নিয়ে আসছে। ২০০২ সালেই তারা প্রথম টেলিভিশন বিতর্কে অংশগ্রহণ করে। গত বছর অনুষ্ঠিত কোকাকোলা ‘বাংলা এখন বাংলা তখন’ বিতর্ক প্রতিযোগিতা ও অ্যাকশনএইড প্রথম আলো বন্ধুসভা বিতর্ক উৎসবে বিভাগীয় চ্যাম্পিয়ন হয় সংগঠনটির একদল মেধাবী বিতার্কিক। এ ছাড়া প্রথম কৃষি বিতর্ক উৎসব, সহিংস উগ্রবাদবিরোধী বিতর্ক প্রতিযোগিতাসহ বিভিন্ন আন্তবিশ্ববিদ্যালয় বিতর্ক প্রতিযোগিতায় তারা অংশগ্রহণ করে ও সাফল্য বয়ে আনে।

২৫ বছরের সোনালি অতীতে সংগঠনটির অর্জনও অনেক
২৫ বছরের সোনালি অতীতে সংগঠনটির অর্জনও অনেক
ছবি: সংগৃহীত

২০১৯ সালে সফলভাবে এইচএসটিইউ ডিবেটিং সোসাইটি (এইচএসটিইউডিএস) জাতীয় বিতর্ক উৎসবের আয়োজন করেছিল এই বিতর্কের সংগঠন। এ ছাড়া মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে গত ডিসেম্বরে করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই অনলাইনে পর্দা নেমেছে এইচএসটিইউডিএস জাতীয় বারোয়ারি বিতর্ক প্রতিযোগিতা ২০২০–এর।
করোনা মহামারির কারণে এ বছর ২৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আড়ম্বরপূর্ণভাবে উদ্‌যাপিত না হলেও রজতজয়ন্তীতে সংগঠনটির সব সদস্য তাঁদের বিতর্কচর্চার ধারা বজায় রাখার দৃঢ় প্রত্যয়ে উদ্দীপ্ত।

‘শোনো, বিতর্ক আমাদের সৌন্দর্য, যুক্তিই আমাদের শক্তি’ মূলমন্ত্রকে ধারণ করে যুগের পর যুগ হাবিপ্রবির শিক্ষার্থীদের কাছে যুক্তিচর্চার মুক্তমঞ্চ হয়ে উঠুক, সেই প্রত্যাশা সাবেক ও বর্তমান সব বিতার্কিকের।

লেখক: মো. মিরাজুল আল মিশকাত, সাবেক, প্রচার ও প্রকাশনাবিষয়ক সম্পাদক হাবিপ্রবি ডিবেটিং সোসাইটি।