বাংলাদেশ

দুই দশক পর যাবজ্জীবন থেকে খালাস

প্রকাশ: ১৩ জানুয়ারী ২০২১, ৫:৫১ অপরাহ্ণ
আদালত
আদালত
প্রতীকী ছবি

যশোরে করা এক হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন দণ্ডিত শফিকুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তিকে খালাস দিয়েছেন আপিল বিভাগ। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের আপিল বিভাগ আজ বুধবার এ রায় দেন।

সাজার রায়ের বিরুদ্ধে শফিকুলের করা আপিল মঞ্জুর করে এ রায় দেওয়া হয়। শফিকুল কারাগারে থাকলে তাঁকে অবিলম্বে মুক্তি দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, ১৯৯৬ সালে রওশন আলী নামের এক কিশোরকে হত্যার অভিযোগে বিচারিক আদালতের রায়ে শফিকুলের যাবজ্জীবন সাজা হয়। রওশন ও শফিকুল পেশায় নরসুন্দর ছিলেন। পেশাগত ব্যবসায়িক বিরোধ নিয়ে ওই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয় বলে রাষ্ট্রপক্ষের দাবি। ২০০০ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি বিচারিক আদালতে রায় হয়।

রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করেন শফিকুল। ২০০৭ সালের ৭ মে সাজা বহাল রেখে রায় দেন হাইকোর্ট। এই রায়ের বিরুদ্ধে ২০১২ সালে আপিল করেন শফিকুল, যার ওপর আজ রায় হলো। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ। শফিকুলের পক্ষে আইনজীবী দেখা যায়নি।

পরে বিশ্বজিৎ দেবনাথ প্রথম আলোকে বলেন, শফিকুলের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে তাঁর বয়স ১৬ বছর উল্লেখ রয়েছে। অভিযোগ গঠনের সময় বয়স উল্লেখ ছিল না। মামলার বিচার হয় নিয়মিত আদালতে। এ বিষয়গুলো শুনানিকালে আদালতের নজরে আসে। শুনানি শেষে আপিল বিভাগ মামলার বিষয়বস্তু এবং অন্যান্য সাক্ষ্য–প্রমাণ বিশ্লেষণ করে আপিল মঞ্জুর করেছেন। অর্থাৎ শফিকুলকে খালাস দেওয়া হয়েছে। যদি শফিকুল কারাগারে থাকেন, তাহলে তাঁকে অবিলম্বে মুক্তি দিতে বলা হয়েছে।