জেলা

৬ ঘণ্টা পর ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ ট্রেন চলাচল শুরু

প্রকাশ: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৩:৮ অপরাহ্ণ
ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রেলপথে ট্রেনের একটি বগির চাকা লাইনচ্যুত হয়েছে
ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রেলপথে ট্রেনের একটি বগির চাকা লাইনচ্যুত হয়েছে
ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রেলপথে চলাচলকারী ট্রেনের বগির চাকা লাইনচ্যুত হওয়ার ছয় ঘণ্টা পর পুনরায় ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। শনিবার বেলা পৌনে ১১টার দিকে বগির একটি চাকা লাইনচ্যুত হলে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে উদ্ধারকারী ট্রেন এসে দুর্ঘটনাকবলিত ট্রেনের বগি উদ্ধার এবং লাইন মেরামত করলে বিকেল পাঁচটার দিকে পুনরায় ট্রেন চলাচল শুরু হয়।

এ বিষয়ে রেলওয়ের নারায়ণগঞ্জ স্টেশনমাস্টার গোলাম মোস্তফা প্রথম আলোকে বলেন, সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নারায়ণগঞ্জ স্টেশন ছেড়ে যাওয়া রেলের একটি বগির চাকা শহরের গলাচিপা এলাকায় লাইনচ্যুত হয়ে পড়ে। এতে ঢাকার সঙ্গে নারায়ণগঞ্জের রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। খবর পেয়ে ঢাকা থেকে উদ্ধারকারী ট্রেন ঘটনাস্থলে এসে বেলা একটার দিকে দুর্ঘটনাকবলিত ট্রেনের চাকা উদ্ধার করে ট্রেনটি ঢাকায় নিয়ে যায়। বিকেল পাঁচটার দিকে লাইন মেরামতের কাজ শেষ হলে পুনরায় ট্রেন চলাচল শুরু হয়।

গোলাম মোস্তফা আরও বলেন, চাকা লাইনচ্যুত হওয়ায় বেলা আড়াইটার পর থেকে ঢাকা থেকে ফতুল্লা স্টেশন পর্যন্ত ট্রেন চলাচল করেছে।
নারায়ণগঞ্জ রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) মোখলেছুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, ঢাকাগামী ট্রেনের মাঝখানের একটি বগির চাকা লাইনচ্যুত হয়ে রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। তবে এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা ট্রেনের চারটি বগির আটটি চাকা শহরের ১ নম্বর রেলগেট এলাকায় লাইনচ্যুত হয়ে পড়ে। এতে দুপুরের পর থেকে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রেলপথে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। লাইনচ্যুত বগি উদ্ধার করে লাইন মেরামতের পরে রাত ২টা ২০ মিনিটে ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশে নারায়ণগঞ্জ স্টেশন ছেড়ে যায়।

নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রতিদিন কয়েক লাখ লোক রাজধানীসহ বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করে। যাতায়াতের জন্য যাত্রীবাহী বাস, ট্রেন ও লঞ্চ রয়েছে। তবে যানজট এড়িয়ে নির্দিষ্ট সময়ে গন্তব্যে পৌঁছাতে যাত্রীরা ট্রেনে যাতায়াত করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে। ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রেলপথে প্রতিদিন ১৬ জোড়া ট্রেন চলাচল করে। প্রতি ট্রেনে বগির সংখ্যা সাতটি।

Also Read: ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রেলপথে ফের ট্রেন লাইনচ্যুত