করপোরেট সংবাদ

৬৫ ওয়াট সুপারডার্ট চার্জিং প্রযুক্তি নিয়ে বাজারে রিয়েলমি ৭ প্রো

প্রকাশ: ১৭ অক্টোবর ২০২০, ১১:৩০ পূর্বাহ্ণ
বাংলাদেশের প্রযুক্তিপ্রেমীদের দুর্দান্ত স্মার্টফোনের অভিজ্ঞতা দিতে রিয়েলমি বাংলাদেশে এনেছে রিয়েলমি ৭ প্রো
বাংলাদেশের প্রযুক্তিপ্রেমীদের দুর্দান্ত স্মার্টফোনের অভিজ্ঞতা দিতে রিয়েলমি বাংলাদেশে এনেছে রিয়েলমি ৭ প্রো
ছবি: বিজ্ঞপ্তি

বর্তমান প্রজন্মকে ট্রেন্ডসেটিং স্মার্ট লাইফস্টাইলের অভিজ্ঞতা দিতে বিশ্বের দ্রুত বর্ধনশীল স্মার্টফোন ব্র্যান্ড রিয়েলমি প্রতিনিয়ত উদ্ভাবনী স্মার্টফোন বাজারে নিয়ে আসতে সচেষ্ট রয়েছে। কারণ, হালের তরুণ-তরুণীরা স্মার্টফোন ব্যবহারের ক্ষেত্রে বেশ সচেতন। তারা প্রতিনিয়ত এমন ফোনের সন্ধান করে যেটা দিয়ে তারা অনলাইনে পড়াশোনা চালিয়ে নেওয়া, কনটেন্ট উপভোগ, উন্নতমানের ক্যামেরা ও দুর্দান্ত ব্যাটারি ব্যাকআপের সুবিধা পাবেন। অর্থাৎ তারা একের ভেতর সব ধরনের সুবিধা পেতে চান। যেসব ক্রেতা একের ভেতর সব ধরনের সুবিধা পেতে চান তাদের কথা বিবেচনা করেই যাত্রা শুরুর পর থেকে রিয়েলমি দুর্দান্ত ফিচার সমৃদ্ধ স্মার্টফোন বাজারে ছেড়েছে। এর ধারাবাহিকতায়, বাংলাদেশের প্রযুক্তিপ্রেমীদের দুর্দান্ত স্মার্টফোনের অভিজ্ঞতা দিতে রিয়েলমি দেশের বাজারে উন্মোচন করেছে রিয়েলমি ৭ প্রো।

৬৫ ওয়াট সুপারডার্ট চার্জিং প্রযুক্তি রিয়েলমি ৭  প্রো স্মার্টফোনটিতে রয়েছে অসাধারণ সব ফিচার। এসব ফিচারসমূহের মধ্যে ৬৫ ওয়াটের সুপার ডার্ট চার্জিং প্রযুক্তির কথাটি বিশেষভাবে উল্লেখ করতে হবে। এ ফিচার নিঃসন্দেহে ব্যবহারকারীর স্মার্টফোন ব্যবহারে ভিন্নধর্মী অভিজ্ঞতা প্রদান করবে। রিয়েলমি ৭  প্রো ডিভাইসটিতে রয়েছে ৪,৫০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের শক্তিশালী ব্যাটারি। ৬৫ ওয়াটের সুপার ডার্ট চার্জিং প্রযুক্তির মাধ্যমে মাত্র ৩৪ মিনিটে ডিভাইসটির শতভাগ চার্জ হয়ে যাবে এবং মাত্র ১২ মিনিটে প্রায় ৫০ শতাংশের কাছাকাছি চার্জ প্রাপ্ত হবে। যে তরুণেরা মোবাইলে গেম খেলতে পছন্দ করেন তাদের জন্য বিশেষ সুবিধা নিয়ে এসেছে রিয়েলমি। আরেকটি অসাধারণ দিক হলো, মাত্র তিন মিনিটে রিয়েলমি ৭ প্রো ১৩ শতাংশ পর্যন্ত চার্জ গ্রহণে সক্ষম।
এ ছাড়া, ৬৫ ওয়াটের সুপার ডার্ট ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তির অন্যান্য বৈশিষ্ট্যসমূহ হলো—  

 ৬৫ ওয়াট সুপারডার্ট চার্জিং প্রযুক্তি রিয়েলমি ৭  প্রো স্মার্টফোনটিতে রয়েছে অসাধারণ সব ফিচার
৬৫ ওয়াট সুপারডার্ট চার্জিং প্রযুক্তি রিয়েলমি ৭ প্রো স্মার্টফোনটিতে রয়েছে অসাধারণ সব ফিচার
ছবি: বিজ্ঞপ্তি

৬৫ ওয়াট সুপার ডার্ট চার্জিং প্রযুক্তি নতুন প্রজন্মের ডুয়াল সেলে (৪৫০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার = ২২৫০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার*২) একই সাথে ১০ ভোল্ট ৬.৫ অ্যাম্পিয়ারে ফাস্ট চার্জ করতে পারে। ডুয়াল সেল ব্যাটারির ভোল্টেজ অর্ধেকে নামিয়ে এনে চার্জিং স্পিড ও তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ উভয় বিষয়টি নিশ্চিত করে। পুরো চার্জিং প্রক্রিয়াটি নিয়ন্ত্রিত এবং অতিরিক্ত তাপ রোধ করে ডিভাইসটিকে ঠান্ডা রাখতে এবং বৈদ্যুতিক শক্তির উচ্চ দক্ষতার রূপান্তর অর্জনে সহায়তা করে।
সম্পূর্ণ চার্জিং প্রক্রিয়ায় তাপমাত্রার পরিবর্তন পর্যবেক্ষণের জন্য এতে আছে টেন টেম্পারেচার সেন্সর (এনটিসি থার্মিস্টোর, নেগেটিভ টেম্পারেচার কোএফিশিয়েন্ট)। এর ফলে চার্জিং পদ্ধতি আরও গতিশীল হয় এবং এবং অতিরিক্ত তাপ হওয়া থেকে বিরত রাখে।

সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে
১৮০ হার্টজ স্যাম্পলিং রেটসহ রিয়েলমি ৭ প্রো স্মার্ট ডিভাইসে ৬.৪ ইঞ্চি সুপার অ্যামোলেড ফুল স্ক্রিন ডিসপ্লে রয়েছে। এতে করে ফোনের টাচে পাওয়া যাবে অনন্য অভিজ্ঞতা। এলসিডি ডিসপ্লের তুলনায় ওএলইডি ডিসপ্লের ইমেজ কোয়ালিটি তুলনামূলকভাবে উন্নত। ডিভাইসটির ডিসপ্লের অনুপাত ২০:৯, ফুল এফএইচডি+ রেজ্যুলেশনে এর স্ক্রিন-টু-বডি রেশিও ৯০.৮ শতাংশ, ৬০০ নিটস পিক ব্রাইটনেসে উজ্জ্বল আলোতেও স্বাচ্ছন্দ্যে ফোন ব্যবহার করা যাবে।

কোয়াড ক্যামেরায় ফটোগ্রাফিতে নতুন মাত্রা
দুর্দান্ত ফটোগ্রাফিতে রিয়েলমি ৭ প্রো স্মার্ট ডিভাইসে কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে, যার প্রধান ক্যামেরা ৬৪ মেগাপিক্সেল যেখানে সনি আইএমএক্স৬৮২ সেন্সর ব্যবহার করা হয়েছে। রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রাওয়াইড ক্যামেরা, ২ মেগাপিক্সেলের ডেপথ সেন্সর ও ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো শ্যুটার। সেলফি তোলার জন্য ডিভাইসটির সামনে রয়েছে ৩২ মেগাপিক্সেলের ইন-ডিসপ্লে সেলফি ক্যামেরা। রিয়েলমি ৭ প্রো স্মার্ট ডিভাইসের ক্যামেরায় নতুন কিছু ফিচার-মোড ও ফিল্টার আনা হয়েছে। এগুলোর সাহায্যে বিভিন্ন স্থানে নানান ভঙ্গিমায় ছবি তোলা হবে আরও সহজ। তা ছাড়া, ডিভাইসটির নাইট মোডে রাতের চমৎকার সব ছবি তোলা যাবে।

শক্তিশালী পারফরমেন্স
রিয়েলমি ৭ প্রো স্মার্ট ডিভাইসে রয়েছে শক্তিশালী ও কার্যকর ৭২০জি কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসর। ৮ ন্যানোমিটারের এই চিপসেট ক্রায়ো ৪৬৫ সিপিউ ও অ্যাড্রেনো ৬১৮ জিপিউ-এর সমন্বয়ে দিবে অসাধারণ পারফরমেন্স। ৮ গিগাবাইট ডিডিআর৪এক্স র‌্যাম ও ১২৮ জিবি ইউএফএস ২.১-এর সঙ্গে যেকোনো কাজে সর্বোচ্চ ২.৩ গিগাহার্টজ গতি প্রদানে সক্ষম এই স্মার্টফোন। রিয়েলমি ৭ প্রোতে আছে তিনটি কার্ড স্লট রয়েছে। এ তিনটি স্লটের দু'টিতে সিম কার্ড ও একটিতে এসডি কার্ড রাখা যাবে (২৫৬জিবি পর্যন্ত)। ফলে ছবি তুলতে, ফোর কে ভিডিও করতে কিংবা পছন্দের কনটেন্ট ডাউনলোডে স্টোরেজ নিয়ে আর ভাবতে হবে না।

মাত্র দু’বছরেরও কম সময়ের মধ্যে বৈশ্বিক স্মার্টফোনের বাজারে নিজেদের ট্রেন্ডসেটার ব্র্যান্ড হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে রিয়েলমি। বাংলাদেশে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরুর পর থেকে দেশের বাজারে রিয়েলমির জয়যাত্রা অব্যাহত রয়েছে। সম্প্রতি অবমুক্ত হওয়া রিয়েলমি ৭ প্রো মিরর সিলভার ও মিরর ব্লু, এ দু’টি রঙে দেশের বাজারে পাওয়া যাবে ২৭,৯৯০ টাকায়। কেনার জন্য রিয়েলমি বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন।