উচ্চশিক্ষা

স্নাতকোত্তরে এবার ‘খুশি থাকা’র কোর্স

প্রকাশ: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২:৪ অপরাহ্ণ

পড়াশোনা নিয়ে চাপে থাকতে হয় শিক্ষার্থীদের। প্রতিযোগিতামূলক বাজারে নিজেকে তুলে ধরতে অনেক সময় শিক্ষার্থীদের প্রতিযোগিতায় নামতে হয়। এতে করে কমবেশি সব পড়ুয়ার জীবন প্রায় ওষ্ঠাগত হয়ে যায়। পড়া শেষ করে পেশাগত জীবনে পা রাখতেই জীবনে এসে পড়ে নানান জটিলতা। এর ফলে বিষাদ ভর করে জীবনে। কিন্তু ছাত্রজীবন হোক কিংবা পেশাগত জীবনে আনন্দে ভরপুর থাকাটাই সুস্থ জীবনের অন্যতম চাবিকাঠি। আর তাই জীবনে আনন্দে থাকার জন্য পড়ানো হবে বিশ্ববিদ্যালয়ে।

‘এডুকেশন ফর হ্যাপিনেস’ নামের এ কোর্স পড়ানো হবে ভারতের লক্ষ্ণৌ বিশ্ববিদ্যালয়ে। স্নাতকোত্তরে পড়ানো হবে এ কোর্স। কোর্সটি অপশনাল হলেও পরীক্ষা দিয়ে পাস করতে হবে এ ‘হ্যাপিনেস’ কোর্সে। পড়তে পারবেন বিজ্ঞান ও বাণিজ্য, দুই বিভাগের শিক্ষার্থীরাই।

এখন প্রশ্ন মনে হতে পারে, কেন এ বিষয়ে পড়ানো হবে। এর উত্তর দিয়েছেন লক্ষ্ণৌ বিশ্ববিদ্যালয়ের এডুকেশন বিভাগের অধ্যাপক অমিতা বাজপেয়ি। তিনি বলেন, এ কোর্সে শেখানো হবে আনন্দের আসল মানে কী। কীভাবে আনন্দে থাকতে হয়। এ কোর্সে অন্তর্ভুক্ত থাকবে দর্শন ও গীতা। এম এড কারিকুলামে আগামী শিক্ষাবর্ষে পড়ানো হবে এ কোর্স। কোর্সটি জনপ্রিয়তা পেলে পরে ডিগ্রি ও ডিপ্লোমাও চালু করা হতে পারে।

অমিতা বাজপেয়ি বলেন, শিক্ষার্থীরা সুখ খোঁজেন। কিন্তু সঠিক জায়গায় তাঁরা তা খোঁজেন না। সুখ সম্পর্কে তাঁদের কারও কারও ধারণাও ভ্রান্ত। আমরা তাঁদের সুখ সম্পর্কে আসল ধারণাটি দেওয়ার চেষ্টা করব। কোর্সটি নিয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্য এখনই আলোচনা শুরু হয়েছে বলেও জানান তিনি। তিনি এ–ও বিশ্বাস করেন, এ কোর্স চালু হলে শিক্ষার্থীদের মধ্য দিয়ে সমাজের একটা ইতিবাচক পরিবর্তনই হবে। তথ্যসূত্র: বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড