প্রযুক্তি

ইনস্টাগ্রামে রেকর্ড গড়লেন তিনি

প্রকাশ: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৯:৩৯ পূর্বাহ্ণ
ইনস্টাগ্রামে দ্রুততম সময়ে ১০ লাখ অনুসারীর রেকর্ড গড়েছেন স্যার ডেভিড অ্যাটেনবরো
ইনস্টাগ্রামে দ্রুততম সময়ে ১০ লাখ অনুসারীর রেকর্ড গড়েছেন স্যার ডেভিড অ্যাটেনবরো
ছবি: রয়টার্স

মুকুটটা এত দিন জেনিফার অ্যানিস্টনের দখলেই ছিল। তা নিয়ে খুব একটা উচ্চবাচ্য হয়তো করেননি। করার কথাও নয়। তবে খানিকটা গর্ববোধ নিশ্চয় ছিল। গোপনে হয়তো নিজের পিঠও চাপড়ে দিয়েছেন কখনো কখনো। কিন্তু না, সে সুযোগ আর রাখলেন না স্যার ডেভিড অ্যাটেনবরো। ইনস্টাগ্রামে দ্রুততম সময়ে ১০ লাখ অনুসারী অর্জনের রেকর্ড গড়লেন তিনি।

গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের হিসাব বলছে, মাইলফলক ছুঁতে এই ব্রিটিশ ব্রডকাস্টারের সময় লেগেছে মাত্র ৪ ঘণ্টা ৪৪ মিনিট। রেকর্ডটির আগের মালিক ছিলেন মার্কিন অভিনেত্রী জেনিফার অ্যানিস্টন। প্রথম ৫ ঘণ্টা ১৬ মিনিটে ১০ লাখ ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারকারী তাঁকে অনুসরণ করেছিলেন। জেনিফারের আগে ৫ ঘণ্টা ৪৫ মিনিটে একই রেকর্ড গড়েছিলেন ব্রিটিশ রাজদম্পতি প্রিন্স হ্যারি ও মেগান মার্কেল।

ইনস্টাগ্রামে যোগ দেওয়ার পর থেকে আজ শনিবার বেলা তিনটা পর্যন্ত স্যার ডেভিড অ্যাটেনবরোর অনুসারীর সংখ্যা ছিল ৩৮ লাখ। আর প্রথম পোস্ট দেখা হয় ১ কোটি ৫১ লাখ বার। চমৎকার না বলে উপায় নেই।

ইনস্টাগ্রামে তাঁর যোগ দেওয়ার কারণটাও গুরুত্বপূর্ণ। পোস্ট করা প্রথম ভিডিওর বিবরণে তিনি লিখেছেন, ‘ইনস্টাগ্রামে এ-ই আমার প্রথম। আর আমি এ কাজ করছি, মানে আমার সঙ্গে যোগাযোগের নতুন মাধ্যম সচল করছি। কারণ, আমরা সবাই জানি, পৃথিবীর আজ বড় বিপদ। দেশে দেশে আগুন ছড়িয়ে পড়ছে। হিমশৈল গলছে। কোরাল দ্বীপ এখন মৃতপ্রায়। সাগর থেকে মাছ হারিয়ে যাচ্ছে। এ তালিকার যেন শেষ নেই।’

অর্থাৎ পৃথিবী রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ বার্তা সবার মধ্যে পৌঁছে দেওয়ার জন্যই ইনস্টাগ্রামে দেখা যাবে তাঁকে। এ কাজে তাঁকে সাহায্য করবেন জোনি হিউস ও কলিন বাটফিল্ড। তাঁরা দুজন নেটফ্লিক্সের জন্য তৈরি অ্যাটেনবরোর পরবর্তী চলচ্চিত্র ও বই ‘আ লাইফ অন আওয়ার প্ল্যানেট’-এ কাজ করছেন।

সে যাহোক, অভিনন্দন স্যার ডেভিড অ্যাটেনবরো!

তথ্যসূত্র: বিবিসি
তথ্যসূত্র: বিবিসি