এশিয়া

ফিলিস্তিন সংকট সমাধানে জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান আব্বাসের

প্রকাশ: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৫:২৭ অপরাহ্ণ
ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস
ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস

ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে বিদ্যমান সংকট সমাধানে আগামী বছরের শুরুতেই উদ্যোগ গ্রহণ করতে জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস। শুক্রবার জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে দেওয়া ভাষণ থেকে এই আহ্বান জানান তিনি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়, ইসরায়েলের সঙ্গে উপসাগরীয় দেশগুলোর সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণের প্রক্রিয়া অংশ হিসেবে বাহরাইন ও সংযুক্ত আরব আমিরাত চুক্তি করেছে। ইসরায়েলের সঙ্গে এই চুক্তিতে মধ্যস্থতা করেছে যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু দেশটির এই পদক্ষেপ খারিজ করেছেন আব্বাস। তিনি বলেন, ইসরায়েলের যে দখলদারত্ব, তা চলতে থাকলে এই অঞ্চলে শান্তি, স্থিতিশীলতা আসবে না, সহাবস্থান নিশ্চিত করা সম্ভব হবে না।

জাতিসংঘের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯-এর কারণে এবারের সম্মেলন ভার্চ্যুয়ালি অনুষ্ঠিত হচ্ছে। চলমান এই অধিবেশনে ভিডিও বার্তায় আব্বাস বলেন, ‘আন্তর্জাতিক আইনে যে নিশ্চয়তা দেওয়া হয়েছে, তা অনুসারে ফিলিস্তিন প্রশ্নের একটি সমাধানের জন্য আমাদের কত দিন অপেক্ষা করতে হবে? ইসরায়েলের দখলদারত্বের কারণে ফিলিস্তিনের জনগণ আরও কত দুর্বল হতে থাকবে। ফিলিস্তিনের শরণার্থী দশার সমাধান করতে কত দিন লাগবে আমাদের?’
আব্বাস বলেন, এই ভূখণ্ডে ছয় হাজার বছর ধরে বসবাস করছে ফিলিস্তিনের জনগণ।

তারা এই ভূখণ্ডেই থাকবে। যত দিন তাদের অধিকার অর্জিত না হচ্ছে, তত দিন এই দখলদারত্ব, প্রতিহিংসা ও বিশ্বাসঘাতকতার বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকবে তারা।
আব্বাস প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, ‘বাধাবিপত্তি আর অবিচারের মধ্যেও আমরা মাথা নত করব না, আমরা নতি স্বীকার করব না, আমরা কোনো মীমাংসা করব না এবং আমাদের বিজয় হবেই।’

আব্বাস অভিযোগ করেন, ফিলিস্তিনের সঙ্গে যত চুক্তি করেছে, সবই লঙ্ঘন করেছে ইসরায়েল। দ্বি-রাষ্ট্রিক সমাধানের যে চেষ্টা, তা উপেক্ষা করেছে। দখলকৃত জেরুজালেমকে বদলে ফেলেছে। মুসলমান ও খ্রিষ্টানদের ধর্মীয় স্থাপনাগুলোতে হামলা চালাচ্ছে তারা। আব্বাস বলেছেন, ফিলিস্তিন প্রশ্নে মূল যে সাংঘর্ষিক অবস্থান, সেটি এড়িয়ে যাওয়া হচ্ছে।